২০ ফাল্গুন  ১৪২৭  শুক্রবার ৫ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কফি ভালবাসেন? শীতের সকালে আপনার ঠিকানা হোক এই ক্যাফেগুলি

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 17, 2018 9:16 pm|    Updated: December 19, 2018 3:02 pm

An Images

নিভৃতে বসে কাটানোর ঠিকানাই বলুন বা ইংলিশ ব্রেকফাস্ট। পাহাড় মানেই ক্যাফের আনাগোনা। চেনাজানা হিলস্টেশনের ক্যাফের হদিশ দিলেন তিতাস

মানালি

ক্যাফে ১৯৪৭, ওল্ড মানালি: 
ওল্ড মানালির নিঝুম রাস্তার একধারে এই ক্যাফের গা ঘেঁষে বয়ে যায় মানাসলু নদী ও আগলে রাখে পাহাড়। এককথায় পিকচার পারফেক্ট রিভারসাইড ক্যাফে। নরম আলোয় মোড়া এ ক্যাফের মেনুতে রয়েছে কন্টিনেন্টাল, ভারতীয় ও ইজরায়েলি খাবার। মানালির এটি প্রথম মিউজিক ক্যাফে, যেখানে প্রায়শই থাকে লাইভ মিউজিকের আয়োজন। গরম এক পেয়ালা চা-কফি অথবা চিল্‌ড বিয়ারের সঙ্গে চেখে দেখুন এখানকার বার্গার, ব্রুসেতা, লাসানে, উড ফায়ার্ড পিৎজা ও অ্যাপেল পাই, তিরামিসু, ব্লুবেরি চিজকেকের মতো মন ভাল করা ডেজার্ট। এখানে হুকা-র ও ব্যবস্থা রয়েছে। ইন্ডোর-আউটডোর সিটিং, ফ্রি ওয়াইফাইও পাবেন এখানে। 
মাস্ট ট্রাই: হ্যান্ড টস্‌ড উড ফায়ার্ড পিৎজা।

দ্য লেজি ডগ:
ওল্ড মানালির মানু টেম্পল রোডের এই ক্যাফে ভেকেশনে লেট মর্নিং ব্র‌াঞ্চ বা ব্রেকফাস্টের জন্য আদর্শ। বিয়াস নদীর ধারে এই ক্যাফের অন্দরসজ্জা বেশ নজরকাড়া। ইতিউতি ছড়িয়ে থাকে হ্যামক, বিন ব্যাগ ও কাঠের আসবাব। লাইভ মিউজিক, ফ্রি ওয়াইফাই ও বার-এর ব্যবস্থা আছে ক্যাফেতে। ক্যাফের বাইরেও রয়েছে বসার ব্যবস্থা। মাল্টিকুইজিন এই ক্যাফের মেনুতে পাবেন কন্টিনেন্টাল, ভারতীয় ও চাইনিজ খাবার। 
মাস্ট ট্রাই : হোয়াইট সস পাস্তা, চকোলেট সুফলে উইথ আইসক্রিম।

দ্য জনসন’স ক্যাফে:
দ্য জনসন’স সংলগ্ন এই ক্যাফের মূল আকর্ষণ আলফ্রেসকো সিটিং অ্যারেঞ্জমেন্ট ও এখানকার লোভনীয় ইউরোপীয় খাবারের পশরা। ব্রেকফাস্ট, ব্রাঞ্চ, পার্টি হাব বা একান্তে তারায় ভরা আকাশের নীচে বসে ডিনার সবই সম্ভব এখানে। ডিনারের জন্য ক্যাফের ছাদের একটি টেবিল বেছে নিন। সার্কিট হাউজ রোডের এই ক্যাফেতে পাবেন চা-কফি, সফ্‌ট বেভারেজ, সব ধরনের লিকার, বিয়ার, ককটেল, শুটার্স-এর যাবতীয়। স্যান্ডউইচ, ইংলিশ ব্রেকফাস্ট, ওয়াফেল, স্যুপ, স্যালাড ও মেনকোর্সের এলাহি আয়োজন রয়েছে এখানে। মূলত ইউরোপীয় খাবারের জন্য জনপ্রিয় এই ক্যাফের মেনুতে রয়েছে সরষে ভাপা মাছ ও মানালির স্থানীয় কিছু পদ।
মাস্ট ট্রাই : উড আভেন বেক্‌ড ট্রাউট, প্যান সিয়ার্ড ট্রাউট, ল্যাম্ব ইন মিন্টি গ্রেভি ও ব্লুচিজ র‌্যাভিওলি, অ্যাপেল ক্রাম্বল ও উড ফায়ার্ড পিৎজা।

[জানেন, কোন কোন বাঙালি পদ দারুণ পছন্দ বিপাশা ও রানির?]

দার্জিলিং
ফুডস্টেপস:
বাঙালির অলটাইম ফেভারিট হিলস্টেশনের শীর্ষে দার্জিলিং। আর এখানে এসে কেভেনটার্স ও গ্লেনারিজে যাননি এমন বাঙালি খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। জনপ্রিয় এই দু’টি জায়গা বাদেও যদি ভাল ক্যাফের খোঁজ চান, তবে পৌঁছে যান এখানে। ছিমছাম খোলামেলা এ ক্যাফেতে রয়েছে অল ডে ব্রেকফাস্টের ব্যবস্থা। ওয়াফেল, প্যানকেক, ভেগান পদ, অরগ্যানিক ফুড, গ্লুটেন ফ্রি বেক্‌ড আইটেম, মাল্টিগ্রেন ব্রেড সবই সমান সুস্বাদু।
মাস্ট ট্রাই: ফ্ল্যাপজ্যাক, আমন্ড অ্যান্ড চকোলেট, হোমমেড কুকিজ।

কুংগা:
পাহাড়ে গিয়ে মনে যদি মোমোরব ওঠে, তবে এখানকার স্টিম্‌ড মোমো ও নুডল্‌স সু্যপ চেখে দেখতে ভুলবেন না। তিব্বতি স্ক্রোল ঝোলানো কাঠের দেওয়াল, ইতিউতি ছড়িয়ে থাকা বৌদ্ধ মোটিফ নিয়ে এ ক্যাফে একেবারে একটুকরো তিব্বত। তিব্বতি খাবারের পাশাপাশি এখানে ব্রেকফাস্ট সিরিয়াল্‌স, চা-কফি, ফ্রুট জু্সও রয়েছে মেনুতে। শুটিং চলাকালীন গান্ধী রোডের এই ক্যাফেতে একবার এসেছিলেন বলিউড তারকা রণবীর কাপুর। জানা যায় তিনিও এখানকার খাবারের বিশেষ ভক্ত।
মাস্ট ট্রাই: নুডল্‌স স্যুপ, গেথুক (স্প্যাগেটি-মাংস দিয়ে তৈরি ক্রিমি স্যুপ), ফালে।

গ্যাটি’স ক্যাফে:
স্থানীয় খাবার থেকে হোমমেড পাস্তা, র‌্যাভিওলি, লাসানে বা স্যান্ডউইচ এখানে রয়েছে সমস্ত। লো কাউচে বসে লাইভ মিউজিকের আমেজ নিন, অথবা চোখ রাখুন টেলিভিশনের পর্দায়। চাইলে স্ক্র‌্যাব্‌ল খেলে বা বই পড়েও কাটাতে পারেন সময়। লাইভ মিউজিকের আসর বসে রাত ৯ টার পর। ম্যাল থেকে ১০ মিনিট দূরত্বের এই ক্যাফেতে রয়েছে ওয়েল স্টক্‌ড বার।
মাস্ট ট্রাই: অ্যারাবিক প্ল্যাটার, মিট প্ল্যাটার, র‌্যাভিওলি, লাসানে।

মেনকোর্স বা ডেসার্ট, সুস্থ থাকতে স্বাদের বদলে মন মজুক পুষ্টিতে

কাশ্মীর
চায়ে জায়ে:
শ্রীনগরের অন্যতম সুদৃশ্য ক্যাফের মধ্যে একটি এটি। হাফ ব্রিটিশ ও হাফ কাশ্মীরি থিমড এই ক্যাফে। অন্দরসাজে ব্যবহৃত ছবি, গান ও মেনুতে থাকা পদের সম্ভার অথেনটিক কাশ্মীরি। তবে ক্যাফের দরজা, জানালা ও ব্যবহৃত আসবাবপত্রে রয়েছে ব্রিটিশ কাজের আধিপত্য। ঝিলাম নদী সংলগ্ন এই ক্যাফের রাতের রূপ আরও মোহময়ী। ‘কট্‌সওল্ডস’-এর টি রুম থেকে অনুপ্রাণিত এই ক্যাফেতে পাবেন স্যাফ্রন কাহওয়া, গ্রিন টি কাহওয়া, শিরমল চেখে দেখুন অবশ্যই।
মাস্ট ট্রাই: কাহওয়া বাব্‌ল টি, পিঙ্ক টি, নুন চায়ে লাতে , হারিসা মাটন ও ব্রেড।

দ্য আদার সাইড ক্যাফে:
রিফ্রেশিং এককাপ কফি আর সঙ্গে বই পড়ার আমেজ নেওয়ার সেরা ঠিকানা শ্রীনগরের এই ক্যাফে। ক্যাফেতে যদি চান মেলোডিয়াস গানের আবহ বা টেলিভিশন তারও ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। অন্দরসাজে মেঝেতে ব্যবহৃত রয়েছে নুড়িপাথর, যা ঢাকা রয়েছে স্বচ্ছ কাচের মোড়কে, সঙ্গে কাঠ ও টাইলসের নান্দনিক মেলবন্ধন। ক্যাফের সিলিং কাঠের তাতে খোদাই করা চিনার গাছের পাতা। মেনুতে রয়েছে ইরানীয় থেকে আইরিশ কফি, মিল্ক শেক, ফ্র‌্যাপে, হট চকোলেট ও ভিন্ন স্বাদের চা, কাশ্মীরি কাহওয়া ও ইতালীয়, লেবানিজ ও প্যালেস্তিনীয় খাবারর পসরা।
মাস্ট ট্রাই: ব্রাউনি, মাটন স্যুপ, মেজে প্ল্যাটার।

উইন্টারফেল ক্যাফে:
নাম শুনেই বোঝা যায় এ ক্যাফের থিম ‘গেম অফ থ্রোনস’। গেম অফ থ্রোনস অনুরাগীদের মাস্ট ভিজিট এই ক্যাফের ছাদের তলায় রয়েছে ‘জিওটি’ মিনিচেয়ার- যেমন, আয়রন থ্রোন, বই পোস্টার। ডাল লেকের ঠিক বিপরীতে এই ক্যাফেতে ট্রাই করুন কন্টিনেন্টাল খাবার।
মাস্ট ট্রাই: পমাগ্রেনেট মোইতো, পপকর্ন মিল্ক শেক, ল্যাম্ব রোস্ট ইন বা-র্বি-কিউ সস।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement