BREAKING NEWS

১৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  রবিবার ৩১ মে ২০২০ 

Advertisement

ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে এই ৫ বিষয় মাথায় রাখুন

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 17, 2020 5:15 pm|    Updated: March 17, 2020 5:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার কোপ থেকে সতর্ক থাকতে অনেক অফিসই কর্মীদের ওয়ার্ক ফ্রম হোম-এর নির্দেশ দিয়েছে। অর্থাৎ কর্মক্ষেত্রে না গিয়ে বাড়ি বসেই কাজ করতে হবে কর্মীদের। ইতিমধ্যেই কলকাতা-সহ গোটা দেশের অনেক অফিসের কর্মচারীরাই বাড়ি বসে কাজ করতে শুরু করে দিয়েছেন। আর বাড়িতে কাজের ক্ষেত্রে সহকর্মীদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করতে সবচেয়ে জরুরি অ্যাপ হল হোয়াটসঅ্যাপ। এই মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমেই কাজ নিয়ে আলোচনা করা সহজ এবং সুবিধাজনক। কিন্তু এক্ষেত্রে অবশ্যই মাথায় রাখুন পাঁচটি বিষয়।

আলাদা গ্রুপ তৈরি করুন:
কোম্পানিতে যাঁদের সঙ্গে সবচেয়ে বেশি যোগাযোগ করার প্রয়োজন হয়, তাঁদের নিয়ে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ তৈরি করুন। আপনি যদি একাধিক বিভাগের দায়িত্বে থাকেন, সেক্ষেত্রে আলাদা আলাদা গ্রুপ বানান। এতে সকলের সঙ্গে যোগাযোগ করতে এবং কাজ ভাগ করে দিতে সুবিধা হবে। সেই সঙ্গে কারা কী কাজ করছেন, সেই আপডেটও অনায়াসে পেয়ে যাবেন। একই কাজ যাতে দু’জন একসঙ্গে না করে ফেলেন, সেই বিষয়টিও লক্ষ্য রাখা সহজ হবে।

কীভাবে গ্রুপ বানাবেন? হোয়াটসঅ্যাপ ওপেন করে ডানদিকে উপরে নিউ গ্রুপ অপশন পাবেন। সেখানে ক্লিক করে গ্রুপে যাদের রাখতে চান সিলেক্ট করে নিন। ব্যস, আপনার গ্রুপ তৈরি। বিভাগ এবং কাজ অনুযায়ী গ্রুপের নামকরণ করুন। এতে কাজে সুবিধা হবে।

[আরও পড়ুন: করোনা রুখতে কেন্দ্রের পদক্ষেপ, এবার সব গ্রাহকের মোবাইল কলার টিউনে সচেতনতার বার্তা]

দুটি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট রাখুন:
ব্যক্তিগত ও পেশাদারী জীবন আলাদা রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ। তাই ব্যক্তিগত হোয়াটসঅ্যাপ সরিয়ে রেখে কাজের জন্য আলাদা একটি নম্বর ব্যবহার করে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট খুলে ফেলুন। অফিস টাইম শেষে ইচ্ছে হলে সেই অ্যাকাউন্টটি মিউট করে রাখতে পারেন। শাওমি, অনার, ভিভো, ওপ্পোর মতো ফোনে ডুয়াল অ্যাপ অপশন থাকে। সেখান থেকে আরও সহজে জোড়া হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট খুলে নেওয়া যাবে।

গ্রুপ ভয়েস কল:
হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ ভয়েস কল আপনার কাজ আরও সহজ করে দেবে। এতে একসঙ্গে সকলের সঙ্গে যেমন কথা বলা যাবে, তেমনই কর্মীরাও অন্যদের কাজ সম্পর্কে ওয়াকিবহাল হতে পারবেন। তবে শুধু ভয়েস নয়, ভিডিও কল করেও কর্মীদের কাজ বুঝিয়ে দিতে পারবেন অনায়াসে।

এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন অন রাখুন:
কাজের আলোচনা যে গ্রুপে হবে, তাতে এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন অন করে রাখুন। কীভাবে করবেন? মেনুর সেটিংসে যান। সেখান থেকে সিকিউরিটিতে ক্লিক করে শো সিকিউরিটি নোটিফিকেশন অপশনটি অন করে নিন। এতে সমস্ত মেসেজ সুরক্ষিত থাকবে। কোনও থার্ড পার্টি অ্যাপ মেসেজ কিংবা কল আপনার কাজে প্রভাব ফেলতে পারবে না।

[আরও পড়ুন: পেটিএমের KYC আপডেটের নামে জালিয়াতি, ব্যাংক থেকে উধাও লক্ষাধিক টাকা]

হোয়াটসঅ্যাপ ওয়েব ব্যবহার করুন:
ডেস্কটপ কিংবা ল্যাপটপে হোয়াটসঅ্যাপ অন করে নিলে মেসেজ করতে বা পড়তে আরও সুবিধা হবে। এতে কাজের মধ্যে বারবার স্মার্টফোনে ঢুকে মেসেজ দেখতে হবে না। কীভাবে হোয়াটসঅ্যাপ ওয়েবের মাধ্যমে ল্যাপটপে হোয়াটসঅ্যাপ খুলবেন? ল্যাপটপ বা ডেস্কটপে https://web.whatsapp.com লিখুন। সেখানেই পাবেন whatsapp ওয়েব অপশন। এবার ফোন থেকে হোয়াটসঅ্যাপ খুলে উপরে ডানদিকের মেনুতে ক্লিক করুন। সেখানে WhatsApp Web পাবেন। সেটিতে ক্লিক করে ডেস্কটপে ভেসে ওঠা QR কোডটি স্ক্যান করলেই সেখানে খুলে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement