১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ট্রাইকে ডেটার দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিল Jio, কী প্রভাব পড়বে গ্রাহকদের উপর?

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 6, 2020 4:42 pm|    Updated: March 6, 2020 6:36 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধীরে ধীরে বাড়ানো হোক ইন্টারনেট ডেটার মূল্য। ভারতীয় টেলিকম রেগুলেটরিকে (TRAI) এমনই প্রস্তাব দিল রিলায়েন্স জিও।

গ্রাহক টানতে প্রতিনিয়ত নানা ধরনের ট্যারিফ-অফার ঘোষণা করছে বিভিন্ন টেলিকম সংস্থাগুলি। ফলে ক্ষতির মুখেও পড়তে হয়েছে টেলিকম ইন্ডাস্ট্রিকে। জিওর মতে, এই সমস্যা মেটানোর জন্য ডেটার ফ্লোর প্রাইস বা সর্বনিম্ন মূল্য বেঁধে দিক ট্রাই। সেই সঙ্গে এক ঝটকায় দাম না বাড়িয়ে ধীরে ধীরে বাড়ানো হোক ডেটার ফ্লোর প্রাইস। প্রতি জিবি ১৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ছয় থেকে নয় মাসের মধ্যে প্রতি জিবির মূল্য ধার্য হোক ২০ টাকা। ওয়্যারলেস ডেটার ক্ষেত্রে এই নিয়ম চালু করার প্রস্তাব দিয়েছে মুকেশ আম্বানির সংস্থা। তবে ভয়েস কল ট্যারিফ একই রাখার সুপারিশও দেওয়া হয়েছে কোম্পানির তরফে। কারণ ভয়েস কলের ট্যারিফ মূল্য বাড়লে অসুবিধায় পড়বেন গ্রাহকরা।

[আরও পড়ুন: ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য সুখবর, দীর্ঘ সফরকালে সঙ্গে রাখুন ‘পোর্টেবল ইনসুলিন কুলার’]

জিওর মতে, ভারতীয় গ্রাহকরা স্বল্প মূল্যের ট্যারিফে বেশি আকৃষ্ট হন। একলাফে অনেকটা দাম বাড়লে তাই বিরক্ত হবেন তাঁরা। সে কথা মাথায় রেখেই ধাপে ধাপে দাম বাড়াতে হবে ডেটা ফ্লোর প্রাইসের। দু-তিন ভাগে ভাগ করে মূল্য বাড়ালে ট্যারিফের দাম একলাফে অনেকখানি বৃদ্ধি পাবে না। জিও (Reliance Jio) চায়, ব্যক্তিগত এবং কর্পোরেট – সমস্ত কানেকশনের ক্ষেত্রে একইরকমভাবে মূল্য বাড়ানো হোক।

উল্লেখ্য, গত মাসেই ভোডাফোন আইডিয়া জানিয়েছিল, তারা চায় ফ্লোর প্রাইস প্রতি জিবিতে বেড়ে ৩৫ টাকা হোক। সেই সঙ্গে ভয়েস কলে প্রতি মিনিটে ৬ পয়সা করে বরাদ্দ হোক। সস্তার অফার দিতে গিয়ে বিপুল অঙ্কের ক্ষতির মুখ দেখেছে এই কোম্পানি। সেই কারণেই দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছিল তারাও। এবার দেখার, এই নিয়ে ট্রাই কী সিদ্ধান্ত নেয়।

[আরও পড়ুন: নগদ থেকেও ছড়াতে পারে করোনা! সংক্রমণ এড়াতে ডিজিটাল লেনদেনের পরামর্শ WHO’র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement