২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

সন্তানকে কবর দিতে গিয়ে মাটির নীচ থেকে জীবন্ত শিশুকন্যা উদ্ধার, তাজ্জব ব্যবসায়ী

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 14, 2019 9:23 pm|    Updated: October 14, 2019 9:55 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজের সন্তান মারা গিয়েছে। বাবা হয়ে এর মতো কঠিন সত্যি বোধহয় আর কিছুই হতে পারে। কিন্তু বাস্তব যতই কঠিন হোক না কেন, তা তো মানতে হবেই। তাই তো মৃত সন্তানকে শেষবারের মতো বুকে জাপটে ধরে গিয়েছিলেন কবর দিতে। কিন্তু মাটি খুঁড়তেই হাতে উঠে এল একটি মাটির পাত্র। সন্দেহে তার ভিতরে নজর পড়তেই অবাক সন্তানহারা বাবা। সদ্যোজাতকে উদ্ধার করলেন উত্তরপ্রদেশের বরেলির বাসিন্দা এক ব্যবসায়ী।

[আরও পড়ুন: সোনিয়া গান্ধীকে ‘মৃত ইঁদুর’ বলে ফের বিতর্কে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী]

হিতেশ কুমার সিরোহি নামের ওই ব্যবসায়ীর স্ত্রী বৈশালীতে সাব ইনস্পেক্টর। গত বুধবার রাতে প্রসব যন্ত্রণা শুরু হয় ওই মহিলার। তড়িঘড়ি একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁর। পরেরদিন সকালে তাঁর স্ত্রী অপরিণত শিশুর জন্ম দেন। তবে জন্মের কয়েক মিনিটের মধ্যেই মৃত্যু হয় সদ্যোজাতের। দুঃসংবাদ শুনেই কান্নায় ভেঙে পড়েন হিতেশ এবং বৈশালী। কঠিন বাস্তবকে মেনে নিয়ে কোনওক্রমে শোক কাটিয়ে মৃত সদ্যোজাতকে কবর দিতে যান হিতেশ।

কবর দেওয়ার জন্য মাটি খোঁড়া শুরু হয়। তিনি বুঝতে পারেন তিনফুট নীচে শক্ত কিছু রাখা রয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যে বুঝতে পারেন সেটি একটি মাটির পাত্র। সেটিকে মাটির নীচ থেকে টেনে তোলেন ব্যবসায়ী। পাত্রটির ভিতর নজর যেতে চোখ প্রায় কপালে ওঠে তাঁর। দেখেন তার ভিতরে ছটফট করছে সদ্যোজাত। কন্যাসন্তানকে বুকে জড়িয়ে থানায় ছোটেন হিতেশ। খিদের জ্বালায় তখন কেঁদেই চলেছে একরত্তি। সকলে মিলে দুধও খাওয়ায় তাকে। সদ্যোজাতের চিকিৎসার বন্দোবস্ত করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: পুজোর মরশুমে রাস্তায় রানুর প্রাণখোলা নাচ! ভাইরাল ভিডিও]

এ প্রসঙ্গে বরেলির পুলিশ সুপার অভিনন্দন সিং বলেন,”ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছে সদ্যোজাত। তাকে কে বা কারা ওভাবে মাটির নীচে ঢুকিয়ে দিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জীবন্ত শিশুকে কবর দেওয়ার মতো অপরাধের সঙ্গে যারা যুক্ত তাদের শাস্তি হবেই।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement