৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধু ধু মরুভূমির পথ৷ তারই মাঝে একফালি রাস্তা৷ আমেরিকার মরুশহর অ্যারিজোনার সেই পথেই গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন ৩৯ বছরের ব্যক্তি কাই স্কট৷ আর সেখানেই ঘটে গেল দুর্ঘটনা৷ শরীরে সামান্য আঘাত নিয়ে নিজে হেঁটেই গন্তব্যে পৌঁছালেন স্কট৷ গ্রেপ্তারও হলেন৷

[ আরও পড়ুন: গেটে ঝুলছে দৈত্যাকৃতি সরীসৃপ! বাড়ি ঢুকতে গিয়ে আঁতকে উঠলেন মালিক]

ঘটনাটা কী? গাড়ির অতিরিক্ত গতি বা নিয়ন্ত্রণ হারানো – কারণ যাইই হোক না কেন, অ্যারিজোনায় রাস্তার থেকে পাশে নেমে গিয়ে কাই স্কটের গাড়িটি সজোরে ধাক্কা মারল একটি কাঁটাগাছে, যাকে সহজভাষায় ক্যাকটাস৷ উইন্ডস্ক্রিন ভেঙেচুরে সটান ভিতরে ঢুকে যায় ওই ক্যাকটাসের অংশ৷ কিন্তু আশ্চর্যের বিষয়, এমন একটা দুর্ঘটনার পরও একেবারে অক্ষত চালক স্কট! কোথাও এতটুকু ক্ষতচিহ্ন নেই! না ক্যাকটাসের কাঁটা, না গাড়ির কাচের টুকরো৷ কেউই স্কটের গায়ের কোনও আঘাত লাগাতে পারেনি৷

তবে দুর্ঘটনায় অক্ষত থাকলেও স্কটের জীবন বিপন্মুক্ত রইল না৷ দুর্ঘটনার খবর পেয়েই পুলিশ পিছু ধাওয়া করে স্কটকে ধরে ফেলেন৷ ওভাবে গাড়ি চালানোর জন্য গ্রেপ্তার করা হয়৷ অ্যারিজোনার নর্থইস্ট ফায়ার পুলিশ এনিয়ে তদন্ত শুরু করেছে৷ তবে এই ঘটনায় তাজ্জব বনে গিয়েছেন খোদ পুলিশ অফিসাররাও৷ কাঁটার ঘা সত্বেও এতটুকু রক্ত ঝরল না, তা স্বচক্ষে দেখেও যেন বিশ্বাস করতে পারছেন না তাঁরা৷ তাই নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় এই ছবি পোস্ট করেছে নর্থইস্ট ফায়ার পুলিশ৷ এবং লেখা হয়েছে – অলৌকিক ঘটনা! কোনও আঘাত নেই৷

[ আরও পড়ুন: ভারী ব্যাগের জন্য বাড়তি খরচে ‘না’, একসঙ্গে ১৫টি জামা পরে বিমানবন্দরে যাত্রী]

সেই ছবির নিচে অনেকে অনেক রকম মন্তব্যও করেছেন৷ একজন তো লিখেই ফেললন, এও কি সম্ভব? কেউ বলছেন, গাড়ির মাঝে কীভাবেই বা ক্যাকটাস ঢুকে গেল, তা বুঝতেই পারছেন না৷ সে যাই হোক, কাঁটার ধাক্কায় যে গাড়ির ক্ষতি হয় এবং মানুষ একেবারে অক্ষত থাকেন, এই ঘটনার পর এখন পুলিশ মহলে তো বটেই, অ্যারিজোনাবাসীর মধ্যেও আলোচ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে স্কট-ক্যাকটাস দুর্ঘটনা৷  

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং