BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৭  শুক্রবার ২২ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বামীর পরকীয়া হাতেনাতে ধরলেন স্ত্রী, জুটল বর্বরোচিত শাস্তি

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: November 25, 2020 4:44 pm|    Updated: November 25, 2020 4:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ অন্য মহিলার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, স্ত্রীর হাতে পাকড়াও স্বামী। না, বিচ্ছেদ বা মামলা নয়, এরপর স্বামীকে এমন শাস্তি দিলেন, যা শুনলে হাড় হিম হয়ে যেতে বাধ্য। জানা গিয়েছে, অন্য মহিলার সঙ্গে হাতনাতে স্বামীকে দেখতে পাওয়ার পর তাঁকে বেধড়ক মারেন স্ত্রী। এখানেই শেষ নয়, প্রাচীন বর্বরতার অনুসরণে একটি খাঁচার মধ্যে স্বামীকে বেঁধে নদীর জলে ফেলে দিলেন। ঘটনাটি ঘটেছে চিনের (China) মাওমিং শহরে। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি।

জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই অন্য এক মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল অভিযুক্তর। এর মধ্যেই একদিন হাতেনাতে ধরা পড়ে যান স্ত্রীর কাছে। এরপরই স্বামীকে মারধর করেন ওই মহিলা। তারপর আরও কয়েকজন ব্যক্তির সাহায্য়ে স্বামীকে একটি খাঁচার মধ্যে দড়ি দিয়ে বেঁধে নদীর জলে ফেলে দেন। আর পুরো ঘটনাটির ভিডিও ধরা পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। দেখা যায়, মারধর এবং বাঁধার সময় রীতিমতো কাঁদছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তাতেও মন গলেনি স্ত্রীর।

[আরও পড়ুন:‌ ডাম্বল হাতে শরীরচর্চায় ৮২ বছরের ‘পালোয়ান’ ঠাকুমা, ভাইরাল ভিডিও প্রশংসা কুড়োচ্ছে নেটদুনিয়ায়]

যে শাস্তি ওই ব্যক্তিকে দেওয়া হয়েছে, তার প্রচলন ছিল প্রাচীন চিনে। এই শাস্তির নাম ‘Dip in a pig cage’‌। ‌অর্থাৎ খাঁচার মধ্যে কোনও ব্যক্তিকে ঢুকিয়ে তাঁকে দড়ি দিয়ে বেঁধে নদীতে ফেলে দেওয়া। ওই ব্যক্তির ক্ষেত্রেও এই একই ঘটনা ঘটেছে। তাঁকেও এভাবে ফেলে দেওয়া হয়েছে। মূলত প্রাচীন মিং রাজাদের আমলে এই রীতির প্রচলন ছিল। দোষী ব্যক্তিকে যাতে জলে ফেলেও দিলেও সে পালাতে না পারে, সেজন্য ওই খাঁচার সঙ্গে বেঁধে ফেলা দেওয়া হত। যদিও এই ঘটনায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন ওই ব্যক্তি। কোনওরকমে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনায় জড়িত থাকায় এরই মধ্যে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন:‌ জলে নেমে কুমিরের মুখ থেকে সারমেয়কে উদ্ধার করলেন এক ব্যক্তি, ভাইরাল রোমহর্ষক ভিডিও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement