২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বুকিদের প্রস্তাবে সায় দেননি। কিন্তু সেই তথ্য লুকিয়েছিলেন বলে কড়া শাস্তি ভোগ করতে হচ্ছে বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার শাকিব আল হাসানকে। আইসিসি’র দুর্নীতি দমন শাখা আগামী দুবছরের জন্য (একবছরের জন্য বলবৎ) সব ধরনের ফর্ম্যাটের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করেছে বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারকে। শাস্তির খবরে ভেঙে পড়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। ওপার বাংলার বিভিন্ন জায়গায় দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল-প্রদর্শন হচ্ছে। আপাতত বাইশ গজের বাইরে থাকলেও ব্যবসায় মনোনিবেশ করতে চান শাকিব। যদিও বেশ কিছু ব্যবসাতে যুক্ত রয়েছেন তিনি। কিন্তু জানা গিয়েছে, এবার একেবারে অন্যধরনের ব্যবসা শুরু করছেন শাকিব। এবার কাঁকড়ার চাষ শুরু করছেন ওই ক্রিকেটার।

বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, সাতক্ষীরা জেলার বুড়িগোয়ালি অঞ্চলে ৫০ বিঘা জমির উপর কাঁকড়া চাষের খামার গড়ে তুলছেন তিনি। খামার নির্মাণের কাজ প্রায় শেষের দিকে। এই খামারের নাম শাকিব অ্যাগ্রো ফার্ম লিমিটেড। সব ঠিক থাকলে আগামী বছর থেকে এখানে কাঁকড়া চাষ শুরু হবে। আধুনিক মানের খামার তৈরি হচ্ছে। রয়েছে শ্রমিকদের থাকার ব্যবস্থা। ফ্রিজারও থাকছে। জানা গিয়েছে, প্রায় ১৫০ জনের কর্মসংস্থান হবে এই খামার শুরু হলে। প্রসঙ্গত, এই সাতক্ষীরা জেলারই বাসিন্দা বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমে শাকিবের দুই সতীর্থ সৌম্য সরকার ও মুস্তাফিজুর রহমানের। শাকিবের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, আপাতত ক্রিকেট থেকে দূরে ব্যবসাতেই ডুবে থাকতে চান অলরাউন্ডার।

[আরও পড়ুন: আরও শক্তিশালী হয়ে মাঠে ফিরবে শাকিব, আত্মবিশ্বাসী স্ত্রী শিশির]

উল্লেখ্য, আইসিসির দেওয়া শাস্তি মাথা পেতে নিয়ে শাকিব বলেছেন, “নির্বাসিত হয়ে অত্যন্ত খারাপ লাগছে। কিন্তু আমি প্রস্তাব পেয়েও যে তা গোপন করেছি, সেটা স্বীকার করছি। আইসিসির দুর্নীতি দমন শাখা শক্ত হাতে দুর্নীতি রোধে ভূমিকা পালন করে। কিন্তু আমি আমার দায়িত্ব পালন করিনি। গোটা বিশ্বের ক্রিকেটার এবং ক্রিকেটপ্রেমীদের মতো আমিও চাই, ক্রিকেট যেন দুর্নীতি মুক্ত থাকে। খেয়াল রাখব, পরবর্তীকালে আমার মতো ভুল যেন আর কেউ না করে।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং