৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রোগ মোকাবিলায় নয়া পদক্ষেপ,মেক্সিকোয় বন্ধ হল করোনা বিয়ারের উৎপাদন

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 3, 2020 2:57 pm|    Updated: April 3, 2020 2:57 pm

Maxico will suspend the production of Cororna Beer

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মেক্সিকোয় মহামারি আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। মারণ ভাইরাসের সঙ্গে মোকাবিলা করতে প্রয়োজন প্রচুর অর্থ ও উন্নত মানের চিকিৎসা ব্যবস্থা। তাই দেশের মানুষের স্বাস্থ্যের কথা ভেবে বৃহস্পতিবার থেকে বন্ধ রাখা হয়েছে ‘করোনা বিয়ার‘-এর উৎপাদন। বিয়ারের উৎপাদনের টাকা ব্যবহার করা হবে চিকিৎসা ক্ষেত্রে।

ক্রমেই জনজীবনে ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনার থাবা। বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এরই মাঝে মেক্সিকোয় ‘করোনা বিয়ার’-এর উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল মেক্সিকো সরকার। ইতিমধ্যেই মেক্সিকোতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫০০, মৃত্যু হয়েছে ৫০ জনের। এই পরিস্থিতিতে দেশে জারি করা হয়েছে হেলথ ইমারজেন্সি। ফলে জীবনধারণের জন্য যেটুকু প্রয়োজন তা ছাড়া দেশের সমস্ত উৎপাদন বন্ধ রেখে সেই সব টাকা ব্যবহার করা হবে চিকিৎসা ক্ষেত্রে। মেক্সিকোতে এই করোনা বিয়ার তৈরি করে গ্রুপো মোডেলো নামের এক কোম্পানি। ‘প্যাসিফিকো’ ও ‘মোডেলো’ নামের আরও দুটি মদের ব্র্যান্ড রয়েছে তাদের। গ্রুপো মোডেলোর তরফে জানানো হয়েছে,”৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী ছাড়া সবকিছুর উৎপাদন বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফে, তাই এই সিদ্ধান্ত।” কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে,”আমরা আমাদের ফ্যাক্টরিতে উৎপাদন কমিয়ে দিয়েছি। কয়েক দিনের মধ্যে তা সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেব। পাশাপাশি সরকার চাইলে গ্রুপো মোডেলো তার ৭৫ শতাংশ কর্মীকে এই মুহূর্তে অন্য কাজে নিযুক্ত করবে।” মেক্সিকো সরকার জানিয়েছে,”কৃষিজাত পণ্য ছাড়া বাকি সেক্টরের উৎপাদন এই মুহূর্তে বন্ধ রাখতে হবে।” মেক্সিকোর অন্যতম প্রধান বিয়ার উৎপাদক সংস্থা ‘হেইনেকেন’ তারাও তাদের ‘টিকেটস’ ও ‘ডস ইকুইস’ এর মত বিখ্যাত বিয়ারের উৎপাদন শুক্রবার থেকে বন্ধ রাখতে পারেন।

[আরও পড়ুন:ইউরোপ-আমেরিকায় অব্যাহত মৃত্যুমিছিল, বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ১০ লক্ষ]

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে এই করোনা বিয়ার নিয়ে একের পর এক মিম তৈরি হয়েছে। বিভিন্ন দেশে এই বিয়ারের বিক্রি কমে গিয়েছে। শুধুমাত্র আমেরিকাতেই এই বিয়ারের বিক্রি ৪০ শতাংশ কমে গিয়েছে। যদিও কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে, ভাইরাসের সঙ্গে তাদের বিয়ারের কোনও সম্পর্ক নেই। শুধুমাত্র নামের মিল রয়েছে। তারপরেও এই বিয়ার থেকে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। আর তাই এই পরিস্থিতিতে করোনা বিয়ারের উৎপাদন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন:মোমবাতি জ্বালানোর নিদানে মোদিকে সমর্থন বলিউডের একাংশের, ব্যঙ্গ করলেন তাপসী!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে