২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পাকিস্তানের অমানবিক মুখ, লকডাউন চলাকালীন রেশন থেকে বঞ্চিত হিন্দুরা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 30, 2020 3:24 pm|    Updated: March 30, 2020 3:24 pm

Religious discrimination continues in Pakistan amid COVID-19 outbreak

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের জেরে পুরো পৃথিবীতে মৃত্যু মিছিল শুরু হয়েছে। এর ফলে সংক্রমণ আটকাতে বিশ্বের বেশিরভাগই দেশেই এখন লকডাউন (lock down) চলছে। এই কারণে সবথেকে সমস্যায় পড়েছেন গরিব মানুষরা। লকডাউনের জেরে কাজ বন্ধ হওয়ায় না খেতে পেয়ে মরে যাওয়ার মতো অবস্থায় হয়েছে তাঁদের। এই পরিস্থিতিতে প্রায় প্রতিটি দেশই গরিব মানুষদের জন্য বিনামূল্যে রেশনের ব্যবস্থা করেছে। আর তা দেওয়া হচ্ছে কে কোন ধর্ম বা সম্প্রদায়ের মানুষ তা না দেখেই। কিন্তু, এই অবস্থাতেই নিজেদের স্বভাব বদলাতে পারেনি পাকিস্তান। সেখানে বসবাসকারী হিন্দুদের রেশন না দিয়ে তিলে তিলে মৃত্যু মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে তাঁদের। বাধ্য হয়ে পাকিস্তানের একজন সমাজসেবী আমজাদ আয়ুব মির্জা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার অনুরোধ করেছেন। রাজস্থান হয়ে পাকিস্তানের সিন্ধুপ্রদেশে ত্রাণ পাঠানোর আরজি জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সংক্রমণ রুখতে সিন্ধুপ্রদেশে লকডাউন জারি করেছে ইমরান খানের সরকার। এর ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন প্রচুর মানুষ। এই কারণে সরকারের পক্ষ থেকে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলি ও প্রশাসনের মাধ্যমে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী বিলি করা হচ্ছে। রবিবার করাচির রেহরি ঘোথ এলাকায় সেই রেশন নিতে জড়ো হয়েছিল কয়েক হাজার মানুষ। কিন্তু, যারা বিলি করছিল তাদের তরফে জানান হয় এই রেশন সামগ্রী হিন্দুদের দেওয়া হবে না। এটা শুধুমাত্র মুসলিমদের জন্য।

[আরও পড়ুন: ৯৯.৯ শতাংশ কার্যকারী, গোপনে করোনা মোকাবিলার অস্ত্র প্রস্তুত করে ফেলেছে চিন! ]

এপ্রসঙ্গে আমজাদ আয়ুব মির্জা বলেন, ‘শুধু করাচিতেই নয় সিন্ধুপ্রদেশের সব জায়গাতেই একই ঘটনা ঘটছে। মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হলেও হিন্দুদের বঞ্চিত করা হচ্ছে। এমনকী তাঁদের চিকিৎসাও করা হচ্ছে না। আমি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে আবেদন রাখছি, আপনি এই বিষয়টির দিকে নজর দিন। এবং রাজস্থানের পথে সিন্ধুপ্রদেশে বসবাসকারী হিন্দুদের জন্য খাবার পাঠান। না হলে এখানে বসবাসকারী হিন্দুদের জীবন বাঁচানো যাবে না।’

[আরও পড়ুন: দু’দিনে মৃত্যু প্রায় দ্বিগুণ, করোনা ঠেকাতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ালেন ট্রাম্প]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে