৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুকুমার সরকার, ঢাকা: আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে উত্তাল বাংলাদেশের রাজনীতি। এর জেরে আগেই ছাত্র রাজনীতি নিসিদ্ধ করেছে বুয়েট (বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ ইঞ্জিনিয়ারিং এণ্ড টেকনোলজি)। এবার, ফাহাদের মৃত্যুকে হাতিয়ার করে ভারতবিরোধী রাজনীতির অভিযোগ উঠল বিএনপি ও জামাতের বিরুদ্ধে।

[আরও পড়ুন: নজরে ‘ড্রাগন’, বাংলাদেশ উপকূলে অত্যাধুনিক রাডার বসাচ্ছে ভারত]

আবরার ফাহাদের হত্যা নিয়ে বিএনপি-জামাত জোট এখন ভারতবিরোধী রাজনীতি নিয়ে নতুনভাবে মাঠে নামার চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন। শনিবার রাজধানীর পল্টনে ঢাকা ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনে, ওয়ার্কার্স পার্টির মতিঝিল থানা সম্মেলনের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। মেনন বলেন, “জামাতের প্রচার মাধ্যম-সহ ইতোমধ্যে আবরারকে আগ্রাসন বিরোধী প্রথম শহীদ হিসেবে বর্ণনা করেছে। তার পুনরুক্তি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। এতেই বোঝা যায় আবরারের হত্যার বিচারের চাইতে তাদের লক্ষ্য হচ্ছে এটা নিয়ে ভারতবিরোধী রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করা। তিনি বলেন, ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যকে ফেনী নদীর জল দেওয়া নিয়ে তারা আপত্তি তুলেছে। এটা স্পষ্ট করে বুঝতে হবে ত্রিপুরা রাজ্য আমাদেরকে একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে সর্বোচ্চ আশ্রয় দিয়েছিল। এমনকি তাদের জনগণের চাইতে আমাদের আশ্রয় গ্রহণকারী জনগণের সংখ্যা বেশি ছিল। তারা তাদের ঘর-বাড়ি ছেড়ে দিয়েছিল। তাদের একটা শহরের জন্য এক গন্ডুষ জল তাদের প্রয়োজন পড়ে, সেটা আমরা দেব না। সেটা হতে পারে না।”

উল্লেখ্য, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পাদিত চুক্তির বিরোধিতা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় খুন হন বুয়েটের ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদ। রবিবার রাতে তাকে শের-ই-বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে ২০১১ নম্বর কক্ষে বেধড়ক পেটান বুয়েট শাসকদলের নেতাকর্মীরা। আবরার হত্যায় উত্তাল হয়ে ওঠে সারাদেশ। চলছে ব্যাপক বিক্ষোভ। দু’পাশে সিসি ক্যামেরা বসাতে এবং শের-ই-বাংলা হলের প্রভোস্টকে প্রত্যাহার করতে হবে।

[আরও পড়ুন: ত্রিপুরাকে ফেনী নদীর জল দেবে বাংলাদেশ, ঘোষণা হাসিনার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং