BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সংগঠনের দায়িত্ব পেয়েই সক্রিয় অর্পিতা ঘোষ, ঘুরে দাঁড়ানোর আশা দক্ষিণ দিনাজপুর তৃণমূলের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 28, 2019 5:18 pm|    Updated: May 28, 2019 5:52 pm

Despite poll debacle Arpita Ghosh assigned major post

রাজা দাস, বালুরঘাট: সদ্য সমাপ্ত লোকসভা ভোটে প্রায় নিশ্চিত আসন হাতছাড়া হয়েছে৷ নেপথ্যে উঠেছে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের তরজা৷ কিন্তু দলনেত্রী দীর্ঘদিনের ভরসাযোগ্য সেনানী, বালুরঘাট কেন্দ্রের পরাজিত প্রার্থী অর্পিতা ঘোষের হাতে জেলার দায়িত্ব সঁপেছেন৷ আর  ক্ষমতার হস্তান্তর হতেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় সক্রিয় হয়ে উঠল প্রাক্তন সভাপতি বিপ্লব-বিরোধী তৃণমূলের অন্য শিবির। বহিষ্কৃতদের ফেরানো শুরু হচ্ছে দলে। জেলা সভাপতির দায়িত্ব পেতেই একাধিক নতুন পরিকল্পনা নিলেন অর্পিতা ঘোষ

[আরও পড়ুন: কাটোয়া পুরসভায় ধুন্ধুমার, বিক্ষোভের মুখে চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়]

বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির কাছে পরাজিত হয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী অর্পিতা ঘোষ। এই পরাজয়ের পেছনে তৎকালীন দক্ষিণ দিনাজপুর তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্রর হাত ছিল বলে তৃণমূলের একাংশের দাবি। অর্পিতাকে প্রার্থী করা নিয়ে প্রথম থেকেই বিরোধিতা করতে দেখা গেছিল বিপ্লব মিত্র ও তাঁর অনুগামীদের। এবার ফলাফল খারাপ হতেই অর্পিতার পরাজয়ের দায়ভার যথারীতি চেপেছে জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্রর উপর। শনিবার কলকাতায় তৃণমূলের সুপ্রিমো দলের জয়ী ও পরাজিত সকল প্রার্থী এবং জেলা সভাপতিদের নিয়ে বৈঠক করেন। সেখানে বেশ কয়েকটি জেলার সভাপতিকে তাঁদের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। কয়েকজন পরাজিত প্রার্থীকে জেলা সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়। দক্ষিণ দিনাজপুরেও বিপ্লব মিত্রকে অপসারিত করে পরাজিত প্রার্থী অর্পিতা ঘোষকে এই জেলা সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়৷

এদিকে, সোমবার গভীর রাতে কলকাতা থেকে বালুরঘাটে ফেরেন দক্ষিণ দিনাজপুর তৃণমূলের নতুন জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ। মঙ্গলবার সকাল থেকে প্রতিমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা বাচ্চু হাঁসদা এবং দলের বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠক করেন। পরে বালুরঘাট ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ জানান, বালুরঘাটে কী কারণে ভোটের ফলাফল খারাপ হয়েছে, তা নিয়ে এদিন দলীয় নেতা এবং কর্মীদের সঙ্গে চলে একটি পর্যালোচনা। এছাড়া তপন, গঙ্গারামপুর এবং কুশমন্ডি ব্লকের দলীয় নেতা ও কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ফের শক্তিপ্রমাণ অর্জুন সিংয়ের, ভাটপাড়ায় সংখ্যাগরিষ্ঠ হয়ে পুরবোর্ড দখলের পথে বিজেপি]

আবার প্রাক্তন বিপ্লব মিত্র দায়িত্বে থাকাকালীন বহিষ্কৃত হওয়া হরিরামপুরে তৃণমূলের লড়াকু নেতা শুভাশিস পালকে দলে ফিরিয়ে আনতে চলেছেন বলে জানান অর্পিতা ঘোষ। তিনি বলেন, জেলায় তৃণমূলের দলীয় কার্যালয় রয়েছে ব্লক বা এলাকা ভিত্তিক। ফলে বিভিন্ন ব্লকের কর্মীদের সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল৷ তাঁদের সকলকে এক ছাদের তলায় আনতে বালুরঘাটে তৃণমূল কংগ্রেসের মূল বা জেলা কার্যালয় তৈরি করা হবে। পাশাপাশি, বিজেপি যেভাবে দলীয় পার্টি অফিস দখল  এবং সন্ত্রাস করছে, তা নিয়ে প্রশাসনের সঙ্গে দেখা করবেন বলে জানান দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের নতুন সভাপতি অর্পিতা ঘোষ৷ তাঁর নেতৃত্বে জেলায় তৃণমূল নেতৃত্ব ফের ঘুরে দাঁড়াতে পারবে বলে আশা জাগছে দলের সর্বস্তরের কর্মীদর মধ্যে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে