৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: ভোট পরবর্তী হিংসা ছড়াল দক্ষিণ ২৪ পরগনাতেও৷ রবিবার ভোট মিটতেই আক্রান্ত বিজেপি৷ মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত সাগরে ২ বিজেপি কর্মীর উপর হামলার ঘটনায় অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে৷ গুরুতর আহত হয়েছে ওই দু’জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷

[আরও পড়ুন: সোমবারও বোমাবাজিতে উত্তপ্ত ভাটপাড়া, অর্জুন সিংয়ের বাড়ি লক্ষ্য করে চলল গুলি]

সাগরের রামকরচক এলাকার ৪০ নং বুথে ভোট শেষ হয় সন্ধে ৬টা নাগাদ৷ তারপর রাতের দিকে বাড়ি ফিরছিলেন দুই বিজেপি কর্মী৷ অভিযোগ, স্থানীয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ওই বিজেপি কর্মীদের উপর লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালায়৷ ব্যাপক মারধর করা হয় তাঁদের৷ চন্দন মণ্ডল ও নান্টু বেরা নামে দুই বিজেপি কর্মী গুরুতর আহত হন৷ তাঁদের প্রথমে সাগর গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি করা হয়৷ পরে শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হলে ডায়মন্ড হারবার জেলা হাসপাতালে নিয়ে স্থানান্তরিত করা হয়েছে৷ আপাতত সেখানেই তাঁরা চিকিৎসাধীন৷ এছাড়া আহত হয়েছেন বিজেপির আরও বেশ কয়েকজন কর্মী, সমর্থক৷

বিজেপির দক্ষিণ ২৪ পরগনার (পশ্চিম) সহ-সভাপতি সুফল ঘাঁটুর অভিযোগ, স্থানীয় তৃণমূল নেতা জিকোর নেতৃত্বে বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা হয়েছে৷ যদিও জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷ তাঁদের পালটা দাবি, ভোটের পর তৃণমূল এধরনের কোনও হিংসার ঘটনায় নিজেদের জড়ায়নি৷ তবে এই ঘটনার জেরে রামকরচক এলাকা অশান্ত হয়ে ওঠে৷ তার রেশ রয়েছে সোমবার সকালেও৷ রাজনৈতিক উত্তেজনা থাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে এলাকায়৷

[আরও পড়ুন: ভোটের ফল মেলাতে পারলেই গঙ্গাবক্ষে ইলিশ ভোজন]

রবিবার, শেষ দফা ভোটের দিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার চার কেন্দ্রে ছিল ভোটগ্রহণ পর্ব৷ জয়নগর, মথুরাপুর, ডায়মন্ড হারবার, যাদবপুর – এই চার কেন্দ্রের মধ্যে ভাঙড়, বাসন্তী ছাড়া কোথাও তেমন অশান্তির খবর মেলেনি৷ বাসন্তীতে দিনের শুরুতেই বিজেপি-তৃণমূলের মধ্যে সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়েছিল এলাকা৷ চলে বোমাবাজিও৷ পরে অবশ্য পরিস্থিতি শান্ত হয়ে নির্বিঘ্নেই চলে ভোটগ্রহণ৷ ভাঙড়ে জমিরক্ষা কমিটির সঙ্গে শাসকদলের বাদানুবাদ, হাতাহাতিতে উত্তাপ ছড়ায়৷ জমিরক্ষা কমিটির বিরুদ্ধে বুথ দখলের অভিযোগ করে তৃণমূল৷ দিনভর ভাঙড়ে চাপা উত্তেজনা ছিল৷ তবে অন্যান্য জায়গায় শান্তিপূর্ণ ভোট হওয়ায় দিনশেষে সাগরে এমন রাজনৈতিক সংঘর্ষ ঘটবে, তা ভাবতেই পারেননি কেউই৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং