BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  রবিবার ৯ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বিরোধিতার জবাব, ফলাফল বেরোতেই ট্রোলড কানহাইয়ার ঘনিষ্ঠ বন্ধু স্বরা

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 25, 2019 1:12 pm|    Updated: May 25, 2019 1:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এক্সিট পোলেই মিলেছিল পূর্বাভাস৷ সেই ইঙ্গিতই বাস্তব রূপ নিল সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের ফলের দিন৷ একের পর এক আসন দখল করল পদ্ম শিবির৷ ৫৪২টি আসনের ৩০৩টিই এখন ‘পদ্ম-আসন’। ফের একবার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে নরেন্দ্র মোদি৷ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রনেতারাও অভিনন্দন জানিয়েছেন তাঁকে৷ সহস্র শুভেচ্ছা বার্তার বন্যায় মাথা ঘামাননি কেউ-ই। মেতেছেন উল্লাসে৷ তবে, মোদিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নেটদুনিয়ায় এবার শাবানা আজমির পর সমালোচনার শিকার হলেন অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর।

[আরও পড়ুন: মোদিকে জয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েও কটাক্ষের শিকার ‘বিজেপি-বিরোধী’ শাবানা আজমি]

বিজেপি তথা নরেন্দ্র মোদি-বিরোধী বলেই পরিচিত স্বরা ভাস্কর। সবসময়েই সোজাসাপটা কথা বলেন। বাঁকা কথা বর্ষণেও প্রতিবাদী স্বরার জুড়ি মেলা ভার। ভোটের মরসুমেই সেলফি কাণ্ডতে এক মোদি ভক্তকে একহাত নিয়েছিলেন স্বরা। আর তাই লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে বিজেপির জয়ের পরে মুখ খুলতেই ট্রোলড হতে হল স্বরা ভাস্করকে। বৃহস্পতিবার ভাবী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেন স্বরা। “এহেন দুর্বার জয়ের জন্য অনেক শুভেচ্ছা নরেন্দ্র মোদিকে। গণতান্ত্রিক দেশের নাগরিক হিসেবে দেশের রায়কে শ্রদ্ধা জানাই। আশা করি, ওনার দেওয়া প্রতিশ্রুতিগুলো পূরণ করে ভারতকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবেন। উনি সমগ্র ভারতের প্রধানমন্ত্রী, তাঁদেরও প্রধানমন্ত্রী যাঁরা ওনাকে ভোট দেননি।”

স্বরার এহেন টুইটের পরই তাঁকে ব্যঙ্গ করতে শুরু করে নেটিজেনদের একাংশ। তাঁদের বক্তব্য, প্রথম থেকেই নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপির বহু সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন স্বরা। এমনকী, বেগুসরাইতে কানহাইয়া কুমারের হয়ে প্রচার চালিয়েছেন। কানহাইয়ার সমর্থনে কথাও বলেছেন একাধিকবার। আপ প্রার্থী অতিশি মারলেনার হয়ে গৌতম গম্ভীরের বিরুদ্ধে প্রচার করেছিলেন রাজধানীতে। তাহলে, এখন কেন মোদিকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন? প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। 

[আরও পড়ুন: গেরুয়া হাওয়ায় ভাসছে বলিউডও, টুইটারে মোদিকে শুভেচ্ছা অভিনয় জগতের ব্যক্তিত্বদের]

এমনকী, ফলাফল বার হওয়ার পরেই বিজেপির ভোপালের প্রার্থী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের জয় নিয়ে কটাক্ষ করেন স্বরা। তিনি লেখেন, “এই প্রথম একজন সন্ত্রাসবাদের মামলায় অভিযুক্ত কেউ দেশের সংসদে হতে চলেছেন। এরপরও কি পাকিস্তানের জঙ্গি সমর্থন নিয়ে প্রশ্ন করা সঙ্গত?” স্বরার এই বক্তব্যের পরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিজেপি সমর্থকরা। তাঁদের বক্তব্য, এখন হেরে গিয়েই উলটো-পালটা বলছেন স্বরা। অনেকে আবার মন্তব্য করেছেন, “ওকে বলতে দাও, হেরে গিয়ে খুব দুঃখ পেয়েছে বেচারি।” এসব দেখে শুনে সোশ্যাল মিডিয়ায় পালটা দিয়েছেন স্বরাও। বলেছেন, আহা! আমি তো জানতামই না যে আমিই প্রতিপক্ষদের মুখ হয়ে দাঁড়াব। (নির্বাচনের পর যাবতীয় পোস্ট দেখে মনে হল।)”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement