৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নির্বাচন ‘১৯

৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুম্বই বস্তির এক খুদে পৌঁছে গিয়েছেন নিউ ইয়র্ক ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের মঞ্চে। শুধু তাই নয়, বাগিয়ে নিয়েছে সেরা শিশু শিল্পীর পুরস্কারটিও। নাম সানি পাওয়ার। বয়স ১১। সফদার রহমান পরিচালিত ‘ছিপা’ ছবির দৌলতেই ১৯ তম নিউ ইয়র্ক ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা শিশু শিল্পীর বিভাগে মনোনীত হয়েছিল মুম্বইয়ের এই খুদে অভিনেতা। আর এবার ‘ছিপা’-তে সানির অভিনয় তাকে এনে দিল সম্মানীয় পুরস্কার।

[আরও পড়ুন:  পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ এ আর রহমানের ]

মুম্বইয়ের কাঞ্চি কুর্বে নামের এক বস্তির বাসিন্দা সানি। অস্ট্রেলিয়ার পরিচালক গর্থ ডাবিসের ছবি ‘লায়ন’-এর শুট যেখানে হয়েছিল ২০১৬ সালে। উল্লেখ্য এই ছবিতেও অভিনয় করেছিল সে। সেরা শিশু শিল্পী হিসেবে পুরস্কৃত হয়ে বেজায় খুশি সানি। তার বক্তব্য, “আমি আজ যেখানে দাঁড়িয়ে এর পুরো কৃতিত্বটাই আমি মা-বাবাকে দেব। একদিন রজনীকান্তের মতো বড় অভিনেতা হয়ে আমার মা-বাবাকে আরও গর্বিত বোধ করাতে চাই। বলিউড এবং হলিউড দুই ইন্ডাস্ট্রিতেই কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে ভবিষ্যতে। বাবা-মায়ের জন্য অনেক অর্থ উপার্জন করতে চাই, যাতে একদিন বড় বাড়ি কিনতে পারি ওদের জন্য। আমি স্বপ্নেও ভাবিনি কখনও যে আমি একদিন লন্ডনে যাব।”

সফদার রহমান পরিচালিত ‘ছিপা’ প্রসঙ্গে সানি জানায়, “একটি বাচ্চা ছেলে তাঁর হারিয়ে যাওয়া বাবাকে খুঁজছে। এসময়ে হঠাৎ-ই কুকুরছানাকে খুঁজে পায় সে। তারপর সেই কুকুরছানাকে সঙ্গী করে একদিন বাবাকেও খুঁজে পায়। এই নিয়েই ছবির গল্প।” 

[আরও পড়ুন: এবার সুজিত সরকারের ছবিতে একসঙ্গে অমিতাভ-আয়ুষ্মান]

“বারাক ওবামার সঙ্গেও দেখা করেছি আমি। উনি আমাকে ‘নমস্তে’ বলে অভ্যর্থনা জানিয়েছিলেন,” আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে জানায় সানি। ছেলের এই সাফল্যে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত সানির বাবা। বলেন, “পাঁচ বছর ধরে সানি অভিনয় করছে। আর সেই দৌলতে আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, লন্ডন, চিন সফর সেরে ফেলেছে ইতিমধ্যেই। শুধু তাই নয়, হোয়াইট হাউসে গিয়ে ওখানকার সেলিব্রিটি, ক্যাবিনেট মিনিস্টারদের সঙ্গে দেখাও করেছে। আমি একজন গর্বিত বাবা।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং