২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বলিউডের মোহে হাতের লক্ষ্মী পায়ে ঠেলব কেন: রণবিজয় সিং

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: August 7, 2019 9:37 pm|    Updated: August 7, 2019 9:37 pm

An Images

রোডিজে তাঁর সতীর্থ আয়ুষ্মান খুরানা আজ বলিউড মাতাচ্ছেন। তিনি রণবিজয় সিং অবশ্য টিভি হার্টথ্রব হয়েই খুশি। মুম্বই থেকে বললেন প্রীতিকা দত্তকে। 

‘স্প্লিটসভিলা ১২’-র জন্য অভিনন্দন। ধন্যবাদ। দেখতে দেখতে বারোটা সিজন হয়ে গেল। ইয়াং জেনারেশনের মধ্যে এখনও সেই এক ক্রেজ। এই ক্রেজের রহস্যটা কী?

এটা সঞ্চালক বা বিচারকের ক্রেডিট নয়। রিয়ালিটি শোয়ের ফর্ম্যাটের ক্রেডিট।

‘রোডিজ’ এবং ‘স্প্লিটসভিলা’ দু’টো শো তৈরি হয়েছে জেন ওয়াইকে মাথায় রেখে। দু’টো শোয়ের মুখই রণবিজয় সিং। আপনার কোনটা বেশি ভাল লাগে?

দু’টো শোয়ের ঘরানা আলাদা। একটা অ্যাডভেঞ্চারাস, একটা রোমান্টিক। ‘রোডিজ’ দিয়ে আমার হাতেখড়ি। ‘স্প্লিটসভিলা’ করেও জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছি। আমার মনের কাছের দু’টোই।

রণবিজয় সিং এবং আয়ুষ্মান খুরানা। দু’জনেরই উত্থান ‘রোডিজ’ থেকে। আয়ুষ্মান এখন আপনার চেয়ে অনেক বেশি সফল। দুঃখ হয়?

আমি আমার মতো। আমার কাজ এবং পরিবার নিয়ে খুশি। তেমন কোনও দুঃখ নেই। আয়ুষ্মান তো মেরা ভাই হ্যায়। আমি গর্বিত ওর কাজে। কোনও বিদ্বেষ নেই।

অনেকেই জানেন আমি বাস্কেটবল ভালবাসি। কিন্তু এটা জানেন না যে, আমি আমেরিকার এনবিএ টিমের অ্যাম্বাস্যাডর ছিলাম ছ’বছর।

আপনি স্মার্ট। হ্যান্ডসাম। হাইটও ভাল। তবু বলিউডে তেমন ডাক পান না কেন?

ডাক পাই না বললে ভুল বলা হবে। যে ছবির অফার পাই, সেগুলো আমার ভাল লাগে না। এখনও অবধি দশটা ছবি করেছি। কোনওটা চলেছে, কোনওটা চলেনি। বলিউডে এলেই সফল, নাহলে জীবন ব্যর্থ- এই থিওরিটা বদলানো দরকার। বলিউডের মোহে হাতের লক্ষ্মী পায়ে ঠেলব, তেমন ছেলে আমি নই। আমার পরিবার আছে। দায়িত্ব আছে। ইন্ডাস্ট্রিতে ক’জনের হাতে তিন বছর টানা কাজের অফার আছে বলুন তো? গুনে গুনে বলা যায়, সাত থেকে আট জন। বাকিরা কী করছে কেউ জানে না। তার থেকে আমার ‘রোডিজ’ আর ‘স্প্লিটসভিলা’ ভাল।

[আরও পড়ুন: যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত, পরিচালককে সাফ নাকচ দীপিকা পাড়ুকোনের]

আপনি রিস্ক নিতে ভালবাসেন না?

ঝুঁকি যে একেবারে নিই না তা নয়। তবে জীবনে স্টেবিলিটি কে না চায়? ‘স্প্লিটসভিলা’-র একটা সিজন শুরু হল। মানে ছ’মাস চলবে। মানে ছ’মাসের পেমেন্ট পাক্কা। কিন্তু একটা ছবির পর আর একটা ছবি আসবে কি না ঠিক নেই। ওই অনিশ্চয়তায় আমি নেই। শোয়ের পর আমি আমার পরিবারকে সময় দিতে চাই। নিজের ব্যবসায় মন দিতে চাই। সারাদিন ইন্ডাস্ট্রির লোকের সঙ্গে থাকব, ওটা হয় না আমার।

“শিক্ষিত হোন। মেয়েদের সম্মান করুন।” 

ইনস্টাগ্রাম পোস্টে দেখেছি, স্নিকার্স আপনার প্রিয়। কত জোড়া স্নিকার্সের মালিক আপনি?

(হাসি) আমি নিজেও জানি না। আমার চণ্ডীগড়, গোয়া, মুম্বইয়ের বাড়িতে এক-একটা ঘর জুড়ে শুধুই স্নিকার্স। আমার নিজেরও একটা স্নিকার্সের ব্র্যান্ড রয়েছে। আসলে আমার অনেক কাজেরই কেউ খোঁজ রাখেন না। আমিও প্রোমোশন করি না।

যেমন?

অনেকেই জানেন আমি বাস্কেটবল ভালবাসি। কিন্তু এটা জানেন না যে, আমি আমেরিকার এনবিএ টিমের অ্যাম্বাসাডর ছিলাম ছ’বছর। আমার নিজস্ব প্রোডাকশন হাউস রয়েছে। আরও ব্যবসা আছে। সিনেমা কম করছি কেন, এই প্রশ্ন শুনেছি অনেকবার। কিন্তু টিভি সঞ্চালকের পাশাপাশি এতগুলো কাজ একসঙ্গে করে যাচ্ছি, সেটাও তো আমার ক্রেডিট।

‘স্প্লিটসভিলা’-য় আপনার কো-হোস্ট সানি লিওন। সেটে সানির সঙ্গে অভিজ্ঞতা কেমন?

ভীষণ ভাল। সানি ফান লাভিং ক্যারেক্টর। ওঁর মতো প্রফেশনাল মানুষ বলিউডে আতসকাচ দিয়ে খুঁজতে হবে।  

[আরও পড়ুন: অভিনয় জগতে পদার্পণ সুহানার, মুক্তি পেল ছবির পোস্টার]

অনেকেই আপনার চেয়ে আপনার স্ত্রী নিয়ে বেশি আগ্রহী।

হ্যাঁ। কোর্টশিপের সময় থেকেই দেখেছি প্রিয়াঙ্কাকে (বোহরা) নিয়ে লোকের আগ্রহ। ও এখন লন্ডনে। আমিও কিছু দিন পর যাব। মুম্বইয়ের গরম আর বর্ষা এড়াতে প্রিয়াঙ্কা এই সময়টা লন্ডনে থাকে।

শেষ প্রশ্ন। ইয়ুথ আইকন রণবিজয় সিং এই জেনারেশনকে কী মেসেজ দেবেন?

শিক্ষিত হোন। মেয়েদের সম্মান করুন। নিজের চারপাশ পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করুন। এইটুকু করলেই অনেক। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement