BREAKING NEWS

২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কাশ্মীরে ফের অনুপ্রবেশের মরিয়া চেষ্টা পাকিস্তানি সেনার, গ্রেনেড ছুঁড়ে রুখল ভারত

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: September 18, 2019 12:26 pm|    Updated: September 18, 2019 12:26 pm

Indian forces launch grenades, foil Pakistan SSG infiltration bid

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিলের পর ভারতে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালানোর মরিয়া চেষ্টা করছে পাকিস্তান। পরমাণু হুমকি থেকে জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ করানোর চেষ্টা। সবরকম উপায়ে উত্তেজনা
ছড়ানোর চেষ্টা করছে। এর জন্য কাশ্মীর সীমান্তের উরি, কেরান, পুঞ্চ ও মেন্ধার ও নৌসেরা-সহ বিভিন্ন সেক্টরের ওপারে পাকিস্তান বর্ডার অ্যাকশন টিম(ব্যাট)-এর সদস্য ও জঙ্গিদের জড়ো করেছে। তাদের সাহায্য করার
জন্য পাঠানো হয়েছে স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপের জওয়ানদেরও। গত কয়েক মাসে পাকিস্তানের ব্যাট-র সদস্যদের ২-৩টি অনুপ্রবেশের চেষ্টা রুখেছেন ভারতীয় সেনা জওয়ানরা। বুধবার সেই রকম একটি ঘটনার ভিডিও প্রকাশ করা
হল সেনার তরফে। জঙ্গিদের মদত দেওয়া বা অনুপ্রবেশ নিয়ে গোটা বিশ্বের কাছে পাকিস্তান যে মিথ্যে বলছে, এই ভিডিওর মধ্যে দিয়ে তা ফের প্রমাণ হল।

[আরও পড়ুন: ভিন ধর্মের যুবতীর সঙ্গে পালিয়েছে ভাই, থানায় নগ্ন করে মার অন্তঃসত্ত্বা-সহ তিন বোনকে]

সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ১২ ও ১৩ তারিখের মাঝামাঝি সময়ে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের হাজিপুর সীমান্তে দিয়ে অনুপ্রবেশ চেষ্টা করে ব্যাট ও স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপের সদস্যরা।। বিষয়টি দেখতে পেয়ে তাদের লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছুঁড়তে শুরু করেন ভারতীয় জওয়ানরা। এর জন্য অত্যাধুনিক আন্ডার ব্যারেল গ্রেনেড লঞ্চারও ব্যবহার করেন তাঁরা। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে রণে ভঙ্গ দিয়ে এলাকা ছেড়ে পালায় ব্যাট ও স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপের সদস্যরা।

ওই ঘটনার সময় তোলা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, রাতের অন্ধকারে হাজিপুর সেক্টর দিয়ে ব্যাটের সদস্যরা অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে। আর তাদের গ্রেনেড লঞ্চার থেকে গ্রেনেড ছুঁড়ে তাদের রোখার চেষ্টা করছে ভারতীয় সেনা। কিছুক্ষণ চেষ্টা করার পর পরিস্থিতি খারাপ বুঝে পালিয়ে যায় পাকিস্তানি সেনারা।

[আরও পড়ুন: ‘সেকেন্ড হ্যান্ড’ গাড়ি কিনলেন দেশের ধনীতম ব্যক্তি মুকেশ আম্বানি! অবাক নেটিজেনরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে