৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  বিশ্বজুড়ে অপদস্থ হওয়ার পরেও শখ মিটছে না পাকিস্তানের। কাশ্মীরকে ফের অশান্ত করতে সবরকমের প্রচেষ্টা চালাচ্ছে তারা। এবার তাদের মদতে আফগান জঙ্গিরা পাক অধিকৃত কাশ্মীর দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করছে বলে জানা গিয়েছে গোয়েন্দা সূত্রে। আর সেই জঙ্গিরা নাকি কাশ্মীরের পাশাপাশি হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে দিল্লিতেও। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে এই খবর পাওয়ার পরেই সতর্ক করা হয়েছে সমস্ত নিরাপত্তা সংস্থাকে। পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকও।

[আরও পড়ুন: চিদম্বরমের পর রাজ ঠাকরে! আর্থিক দুর্নীতির মামলায় জেরা শুরু ইডির]

গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে, জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিলের পরেই ভারতের মাটিতে জঙ্গি হামলা চালানোর চেষ্টা করছে পাকিস্তান। কিন্তু, ভারতের নিরাপত্তা সংস্থাগুলি সজাগ থাকায় তাদের সেই উদ্দেশ্য পূরণ হচ্ছে না। তাই এবার আফগান জঙ্গিদের ভারতে অনুপ্রবেশ করিয়ে কাশ্মীর ও দিল্লি-সহ বিভিন্ন জায়গায় সন্ত্রাসবাদী হামলা চালানো পরিকল্পনা করছে ইসলামাবাদ।  এর জন্য অনেক আফগান জঙ্গি পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের জঙ্গি শিবিরগুলিতে আশ্রয় নিয়েছে। কাশ্মীরে মোতায়েন থাকা সেনাবাহিনীর জওয়ানদের পাশাপাশি সমস্ত সরকারি কর্মচারীদের উপরও হামলা চালানোর ছক রয়েছে তাঁদের। পাশাপাশি পাকিস্তান বিরোধী রাজনৈতিক নেতারাও রয়েছেন সেই তালিকায়।

গোয়েন্দা সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালিসিস উইংয়ের একটি রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, পাকিস্তান সরকারের মদতপুষ্ট আফগান জঙ্গিদের পাশাপাশি ভারতে হামলা চালানোর ছক কষছে জইশ-ই-মহম্মদও। তাদের লক্ষ্য জম্মু ও কাশ্মীরে থাকা নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানরা।

[আরও পড়ুন: ইঁদুরে ভয়! সিবিআই হেফাজতের কীভাবে রাত কাটালেন চিদম্বরম?]

ওই রিপোর্ট আরও জানা গিয়েছে, গত ১৯ তারিখ পাকিস্তানের ভাওয়ালপুরের মার্কাজ উসমান-ও-আলি এলাকায় বৈঠকও করেছে জঙ্গিরা। তাদের নেতৃত্বে ছিল জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের ভাই রউফ আসগর। সেই মিটিংয়ে কাশ্মীরের বিভিন্ন স্কুল ও সরকারি বিল্ডিংয়ে বিস্ফোরণ ঘটানোর পাশাপাশি জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশকর্তাদের খুন করা নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং