BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘প্রিয়াঙ্কা গান্ধী চোরের স্ত্রী’, বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্কে উমা ভারতী

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 17, 2019 12:09 pm|    Updated: April 17, 2019 6:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনের পারদ যত চড়ছে, রাজনীতির ময়দানে ততই প্রবল আকার নিচ্ছে বাগযুদ্ধ৷ কমিশনের তরফে কুমন্তব্যের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হলেও, লাভ আদৌ হচ্ছে কিনা, তা নিয়ে উঠছে বড় প্রশ্ন৷ মায়াবতী, যোগী আদিত্যনাথ, আজম খানের পর এবার বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন উমা ভারতী৷ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে ‘চোরের স্ত্রী’ বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি৷

[ আরও পড়ুন: মাওবাদীদের মদত দিচ্ছে কংগ্রেস, ছত্তিশগড়ের জনসভায় অভিযোগ মোদির]

সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে সবার নজর রয়েছে বারাণসী কেন্দ্রের দিকে৷ ওই কেন্দ্র থেকে লড়ছেন নরেন্দ্র মোদি স্বয়ং৷ সেখান থেকে কংগ্রেসের হয়ে লড়তে পারেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢ়রা৷ দলের তরফে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া না হলেও, রাজনীতির অন্দরমহলে কান পাতলে কমপক্ষে এই জল্পনাই শোনা যাচ্ছে৷ এই প্রসঙ্গেই প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে উদ্দেশে কটাক্ষের সুর চড়ান উমা ভারতী৷ তিনি বলেন, ‘‘একটি গণতান্ত্রিক দেশে যে কেউ ভোটে দাঁড়াতে পারেন৷ কিন্তু প্রিয়াঙ্কা গান্ধী মোদির বিরুদ্ধে দাঁড়ালেও কোনও প্রভাব ফেলতে পারবেন না। তাঁর স্বামী চুরির অভিযোগে অভিযুক্ত৷ তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে জালিয়াতির মামলা চলছে৷ একাধিকবার হাজিরা দিতে হচ্ছে৷ তদন্তকারী সংস্থা তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে তদন্ত চালাচ্ছে৷ সেই ব্যক্তির স্ত্রীকে মানুষ কীভাবে ভোট দেবে? একজন চোরের স্ত্রীকে যেভাবে দেখা হয়, দেশের মানুষও প্রিয়াঙ্কাকে সেইভাবেই দেখবেন।’’

[ আরও পড়ুন: নেতার আত্মীয়ের বাড়িতে উদ্ধার ১২ কোটি টাকা, ভোট বাতিলের সিদ্ধান্ত কমিশনের]

লোকসভা নির্বাচনে আমেঠি ও ওয়ানড় কেন্দ্র থেকে লড়ছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ এই প্রসঙ্গ তুলেও প্রিয়াঙ্কার পাশাপাশি কংগ্রেস সভাপতিকেও কটাক্ষ করেছেন উমা ভারতী। তিনি বলেন, ‘‘দু’টি লোকসভা কেন্দ্র থেকে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিজের পরাজয় নিজেই স্বীকার করে নিয়েছেন রাহুল৷’’

[ আরও পড়ুন: সমাজবাদী পার্টিতে যোগ দিলেন শত্রুঘ্ন সিনহার স্ত্রী, লড়তে পারেন রাজনাথের বিরুদ্ধে]

প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে নিয়ে এমন কুমন্তব্যের জেরে প্রবল বিতর্কের মুখে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উমা ভারতী। রাজনীতির ময়দানে দাঁড়িয়ে একজনকে ব্যক্তিগত আক্রমণ মোটেও ভাল চোখে দেখছেন না কেউই৷ নিজে কুকথা বললেও, জয়াপ্রদাকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্যের জন্য সপা নেতা আজম খানকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি উমা৷ তাঁর দাবি, আজম খানের নির্বাচনে লড়াইয়ের অধিকার কেড়ে নেওয়া উচিত৷ কুমন্তব্যের জেরে যোগী আদিত্যনাথের প্রচার বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশকে আবার ভাল চোখে দেখছেন না উমা ভারতী৷ এই প্রসঙ্গেও এদিন নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷ যোগীর নির্বাচনী প্রচার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত মোটেও গ্রহণযোগ্য নয় বলেই দাবি উমার৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement