BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মাঠে নেমে আম্পায়ারের সঙ্গে তর্ক, বড়সড় জরিমানার মুখে ধোনি

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 12, 2019 4:32 pm|    Updated: April 12, 2019 4:32 pm

MS Dhoni fined fifty percent of match fee for inappropriate behaviour

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রিকেট দুনিয়া তাঁকে চেনে ‘ক্যাপ্টেন কুল’ বলে। কিন্তু বৃহস্পতিবার সোয়াই মান সিং স্টেডিয়ামে মহেন্দ্র সিং ধোনি যা করলেন, তা তাঁর স্বভাব বিরুদ্ধ। মাঠে নেমে আম্পায়ারের সঙ্গে তর্ক, যা আর যাই হোক ধোনিকে মানায় না। আর এই আচরণের জন্য তাঁর ৫০ শতাংশ ম্যাচ ফি খোয়া গেল। প্রাক্তন ক্রিকেটারদের তোপের মুখেও পড়তে হয়েছে। চেন্নাই কোচ স্টিফেন ফ্লেমিং পরে বলেছেন, “ধোনি খুব রেগে গিয়েছিল। এমনিতে ও মাথা ঠান্ডা রাখে। তবে যেভাবে নো বলের ব্যাপারটা আম্পায়ার দেখছিলেন, তাতে ওর মাথা গরম হয়ে গিয়েছিল। আমার মনে হয় ধোনি নিজেও পরে ওর এই মাথা গরম করা নিয়ে নিজেকে প্রশ্ন করেছে।”

[আরও পড়ুন: ক্লান্তির জেরে বিমানবন্দরের মেঝেতেই শুয়ে পড়লেন ধোনি, ভাইরাল ছবি]

জয়পুরের এই ম্যাচের পর ধোনির ম্যাচ ফি-র ৫০ শতাংশ কাটা গিয়েছে। তাঁকে আইপিএলের নিয়মানুযায়ী লেভেল ২ অফেন্সের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ধোনি সেটা মেনেও নেন। তবে, আইপিএলের যা নিয়ম তাতে এই জরিমানার অর্থ চেন্নাই অধিনায়ক নন, দিতে হবে ফ্র‌্যাঞ্চাইজিকেই।
আম্পায়ার উল্লাস গান্ধে নো ডাকার পরই ডাগ আউট থেকে সোজা মাঠে নেমে যান ধোনি। অন্য আম্পায়ার ধোনিকে বিষয়টি বুঝিয়ে বলার পর তিনি অবশ্য আবার ডাগ আউটে ফিরে আসেন। বোলার বেন স্টোকস অবশ্য শেষ ওভারে ম্যাচ জেতাতে পারেননি। মিচেল স্যান্টনার ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ বের করে নিয়ে যান সিএসকের হয়ে। এমনিতে আইসিসির নিয়মানুযায়ী আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানালে তা সিরিয়াস অফেন্স বলে গ্রাহ্য হয়। আর আইপিএল এই আইসিসিরই নিয়মের অন্তর্গত। এক্ষেত্রে একটি ম্যাচ নির্বাসন হতে পারত চেন্নাই অধিনায়কের। তবে তিনি বেঁচে গিয়েছেন শুধুমাত্র জরিমানার উপর দিয়েই।

ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ভন, অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন ওপেনার মার্ক ও, প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া ও হেমাঙ্গ বাদানি- সবাই এই ইস্যুতে ধোনির তীব্র সমালোচনা করেছেন। ভন বলেছেন ধোনি একটা খারাপ নমুনা পেশ করল। তাঁর কথায়, “অধিনায়ক সোজা পিচের উপর চলে আসছে, এটা সচরাচর দেখা যায় না। আমি জানি যে উনি মহেন্দ্র সিং ধোনি। এই দেশের যা খুশি করতে পারেন। কিন্তু তা হলেও তুমি ডাগ আউট ছেড়ে বেরোতে পারো না আর আম্পায়ারের দিকে আঙুল তুলতেও পারো না। অধিনায়ক হিসাবে খুব খারাপ নমুনা পেশ হল এতে।”

[আরও পড়ুন: চেন্নাইয়ে খেলতে চাইছেন না ক্ষুব্ধ ধোনি!]

মার্ক ও বলেছেন, “আমি জানি ফ্র‌্যাঞ্চাইজির চাপ থাকে। অনেক অর্থ আইপিএলে জড়িয়ে আছে। কিন্তু এই আইপিএলে দুই অধিনায়ক অশ্বিন আর ধোনি যে নমুন পেশ করল, তা মেনে নেওয়া যায় না। এটা দেখতেও ভাল লাগেনি। বেন স্টোকসের শেষ ওভারে চতুর্থ বলের ঘটনা এটা। তিনি স্যান্টনারকে কোমর উচ্চতায় ফুলটস বল করেছিলেন। আম্পায়ার গান্ধে নো বলের নির্দেশ দিতে গিয়েও সিদ্ধান্ত বদলে নেন। ধোনি তার আগের বলেই আউট হয়েছেন। তিনি এবার সোজা আম্পায়ারের কাছে চলে গিয়ে কৈফিয়ত দাবি করেন। লেগ আম্পায়ার ক্রিস গাফানে অবশ্য ধোনিকে মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যেতে বলেন।

রবিবার কলকাতায় চেন্নাই সুপার কিংস মুখোমুখি হবে কলকাতা নাইট রাইডার্সের। তার আগে এই ঘটনা একটু হলেও চাপে ফেলে দিয়েছে সিএসকেকে। ফ্লেমিং অবশ্য গোটা ব্যাপারটাকে ঢাকা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন এই বলে যে, ধোনি মাঠে নেমে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তোলেননি, শুধু আলোচনা করেছিলেন। পরে কোচের সঙ্গেও তাঁর কথা হয়। বিপক্ষের জোস বাটলার অবশ্য ধোনির সমালোচনাই করেছেন। তিনি বলেছেন, ধোনির এমন আচরণ করা ঠিক হয়নি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে