৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বুধবার ২২ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্ষণিকের জন্য হলেও সময়কে থামানো সম্ভব। সম্ভব মুহূর্তকে ধরে রাখা। সবই লেন্সের কেরামতি। হাতের আলতো ছোঁয়াতেই মুঠোবন্দি হয়ে যায় স্মৃতি। মোবাইলের ইনবক্স উপচে পড়ে। ছবি তোলার এমন বাতিক অনেকেরই রয়েছে। ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামেই মেলে প্রমাণ। অনেকেই এর কুফল নিয়ে সরব হয়ে থাকেন। তবে ল্যাঙ্কাস্টার বিশ্ববিদ্যালয় ও শেফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই গবেষক ডা. লিজ ব্রিউস্টার ও ডা. অ্যান্ড্রিউ কক্সের দাবি, রোজ একটি করে ছবি তোলা শরীর ও মনের স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশ ভাল।

[সম্পর্ক গড়তে আসরে ফেসবুক, এবার আসছে নতুন ডেটিং অ্যাপ]

প্রায় দুই মাস ধরে এই বিষয়ে গবেষণা করেছেন দুই গবেষক। ছবির তোলার অভ্যাস যাঁদের রয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের নিয়মিত ফলো করেছেন। তারপর এই দাবি করেছেন। এর নেপথ্যে বেশ কয়েকটি কারণ তাঁরা দেখিয়েছেন। যেমন-

১) নিয়মিত ছবি তোলার অভ্যাস থাকলে মানুষ নিজের প্রতি যত্নশীল হয়। কারণ সোশ্যাল মিডিয়ায় সে ছবি যখন আপলোড হচ্ছে প্রত্যেকেই চাইবেন নিজেকে সুন্দর হিসেবে তুলে ধরতে।

Phography-courses-1

২) ব্যস্ত জীবনে যেখানে অনেকেই দম ফেলার ফুরসত পান না, সেখানে রোজ একটি করে তোলা মানে সেই সময়টুকু নিজেকে দেওয়া। এর ফলে কাজের চাপ কিছুটা হলেও কমে।

৩) ধরুন সকালের সময়। সবে সূর্য উঠছে। মুহূর্তটি ফ্রেমবন্দি করতে ইচ্ছে করছে আপনার। কিন্তু যেখানে দাঁড়িয়ে রয়েছেন সেখান থেকে ভাল ভিউ পাওয়া যাচ্ছে না। নেশা চেপে গেল। ভাল ফ্রেমের তাগিদে আপনি খানিকটা হেঁটেই ফেললেন। এতে আপনার প্রাতঃভ্রমণটি কিন্তু কিছুটা হয়ে গেল।

04-photography-memory.w710.h473

৪) মন খারাপের বিকেলে কিছুই ভাল লাগছে না। এমন সময় মোবাইলের ইনবক্সটি খুললেন। অতীতের ফ্রেমবন্দি স্মৃতিগুলিকে আবারও দেখে নিলেন। মন ভাল হতে বাধ্য।

৫) প্রকৃতির ছবি কিংবা সেলফি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করতে পারেন। তাতে লাইক-কমেন্ট কিছু তো পড়বে! এতেই সামাজিক সম্পর্ক আরও উন্নত হবে।

[জানেন ফেসওয়াশ ব্যবহার করে কীভাবে আপনার ত্বকের ক্ষতি করছেন?]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং