নারকো টেস্টে আপত্তি ঋতুপর্ণার পরিচারিকার, বাড়ছে বিতর্ক

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর বাড়ির চুরির ঘটনায় বাড়ছে বিতর্ক।  ওই ঘটনায় পরিচারিকার নারকো টেস্ট হওয়ার কথা ছিল।  কিন্তু এই পরীক্ষার মুখোমুখি হতে অস্বীকার করেছেন ওই পরিচারিকা। তাঁর অভিযোগ, অভিনেত্রীকে সন্তুষ্ট করতেই  তাঁকে এই পরীক্ষার মুখোমুখি হতে চাপ দিচ্ছে পুলিশ।

[চোখ থেকে পেরেক বের হলেও বিপন্মুক্ত নয় বালক করিম]

গত এপ্রিল মাসে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর রবিনসন স্ট্রিটের বাড়ি থেকে চুরি গিয়েছিল লক্ষাধিক টাকার গয়না। হঠাৎ একদিন অভিনেত্রীর মা কোনও কারণে গয়নাগুলি বার করতে যান। তখনই তিনি দেখতে পান গয়নার বাক্সগুলি ভাঙা অবস্থায় রয়েছে। চুরির কথা জানতে পেরে সঙ্গে সঙ্গে শেক্সপিয়র সরণি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। অভিনেত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। গোটা ঘটনায় চূড়ান্ত হতাশ ছিলেন অভিনেত্রী। এভাবে বাড়ির ভিতর থেকে সবার অজান্তে গয়না চুরি যাওয়ার পিছনে কোনও চেনা পরিচিতর হাত রয়েছে বলে প্রথম থেকেই সন্দেহ করেছিলেন তিনি। স্বভাবতই অভিযোগ ওঠে বাড়ির পরিচারিকা জয়নগরের বাসিন্দা দীপালি নস্করের দিকে। কারণ এই ঘটনার মধ্যে কাজ ছে়ড়ে চলে যান দীর্ঘদিনের পরিচারিকা। অবশ্য পরিচারিকার বক্তব্য, দেড় মাস বেতন না পাওয়ায় তিনি কাজ ছেড়ে দিয়েছেন।

[পরনে ধুতি-পাঞ্জাবি, শহরের অভিজাত শপিং মলে ঢুকতে বাধা পরিচালককে]

মামলা গড়ায় ব্যাঙ্কশাল কোর্টে। কোর্টের তরফ থেকে পরিচারিকার নারকো টেস্টের আদেশ দেওয়া হয়। কিন্তু নারকো টেস্ট করতে অস্বীকার করেন অভিযুক্ত। কেন নারকো টেস্ট করাতে চান না দীপালি? সেই প্রশ্নই ওঠে সোমবার কোর্ট চত্বরে। তবে তাঁর বক্তব্য শোনার আগেই বন্ধ হয়ে যায় আদালত। আপাতত কোর্টের পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয় ১৯ জুলাই। অন্যদিকে দীপালির বক্তব্য, নারকো টেস্ট কী, সে বিষয়ে কোন ধারণাই নেই তাঁর। তিনি শুনেছেন এই টেস্টের ফলে শারীরিক ক্ষতি হতে পারে, সেই কারণেই এই টেস্ট করাতে চান না তিনি। তাঁর অভিযোগ, অভিনেত্রী প্রভাবশালী হওয়ায় তাঁকে সন্তুষ্ট করতেই নারকো টেস্ট করাতে তাঁকে চাপ দিচ্ছে পুলিশ। যদিও  অভিনেত্রীর তরফে এর কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *