১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ মে ২০২০ 

Advertisement

কেমন যৌনতা পছন্দ করেন বেশিরভাগ মহিলা? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 5, 2018 8:11 pm|    Updated: July 5, 2018 8:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নারী চরিত্র বেজায় কঠিন। তার চেয়েও কঠিন রমণীর মন। এই মনের নাগাল পাওয়া বেশ দুষ্কর। বিশেষত যৌনতার ক্ষেত্রে। মেয়েরা যে কী চায় কী চায় না, তা বুঝতে পুরুষের গলদঘর্ম দশা হয়। কোনও পুরুষ হয়তো ভাবলেন, তাঁর সঙ্গী হয়তো দুরন্ত যৌনতা উপভোগ করেন। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল ঠিক উলটো। হালকা যৌনতা পছন্দ তাঁর। আবার এর উলটোটা যে হয় না, তা নয়। বরং সমীক্ষা বলছে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এটাই নাকি হয়।

[ অতিরিক্ত যৌনতাই ফুটবলারদের সাফল্যের চাবিকাঠি? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা? ]

একটি অনলাইন ডেটিং সাইট এই সমীক্ষা চালায়। প্রায় ৪ লক্ষ জন এখানে নিজেদের নাম রেজিস্টার করায়। তাদের মধ্যেই সমীক্ষা চালানো হয়। দেখা যায়, প্রায় ৬২ শতাংশ মহিলা দুরন্ত যৌনতা বা রাফ সেক্স পছন্দ করেন। ডেটিং সাইটের সমীক্ষায় তাঁরা একথা স্বীকার করেছেন। নিজেদের পছন্দের কথা অকপটে জানিয়েছেন সকলে।

অনেকেই মনে করেন, নারী মাত্রই কোমল। তারা চায় যৌনতার সময় তার চুল নিয়ে খেলা করুক সঙ্গী। হালকা ফোরপ্লে চাইই চাই। কিন্তু সমীক্ষা বলছে, এমনটা নয় মোটেই। মেয়েরা চায় রাফ সেক্স। তারা চায়, চুল নিয়ে খেলা নয়, ‘ফিফটি শেডস’-এর ক্রিশ্চিয়ান গ্রে’র মতো রীতমতো চুল টেনে সেক্স করুক তার সঙ্গী। পার্টনার তাকে সেক্সের সময় কন্ট্রোল করুক। আর তা অবশ্যই রাফ ভাবে। সম্পূর্ণ বিডিএসএম না হলেও বিডিএসএম-এর মতো হলে ক্ষতি কি?

সুখী দাম্পত্যের চাবিকাঠি লুকিয়ে আপনার হাতেই, মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি ]

অনেকে আবার এতেও সন্তুষ্ট নয়। দুষ্টুমি নয়। দুরন্তপনা পছন্দ তাদের। যৌনতার সময় পার্টনার তাকে বেঁধে রাখুক, চায় তারা। ঠিক যেভাবে ছবিতে ড্যাকোটাকে বেঁধেছিলের জেমি ডরন্যান। এরপর আঁচড়, কামড় হলে তো আরও ভাল। বেয়ন্সের ‘আই অ্যাম অন টু ইউ’ গানটির কথা মনে আছে? ঠিক তেমন যৌনতাই পছন্দ অনেকের।

বিশেষজ্ঞদের মতামত

বিশেষজ্ঞদের মতে, যৌনতার সময় আঁচড়, কামড় রক্ত সঞ্চালনকে তীব্র করে। এর ফলে হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়। যন্ত্রণার ফলে শরীরে উত্তেজনা বেড়ে যায়, আর তার জন্য যৌনতার মাত্রাও বৃদ্ধি পায়। তবে আগুন দু’দিকেই লাগতে হবে। বিছানায় অ্যাডভেঞ্চার চাইলে একদিক রাজি হলে তো আর হবে না। দু’জনকেই এক্ষেত্রে কমফর্টেবল থাকতে হবে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement