৮ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ২৪ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে হাসিনা সরকার ক্ষমতায় আসার পর মজবুত হয়েছে ঢাকা-দিল্লি দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক। বাণিজ্য থেকে শুরু করে প্রতিরক্ষা, সব ক্ষেত্রেই সহযোগিতা করছে দুই দেশ। স্বাভাবিকভাবেই ভারতের লোকসভা নির্বাচনে তীক্ষ্ণ নজর রাখছে ঢাকা। ভোট পরবর্তী পরিস্থিতিতে কীভাবে এগোবে সরকার, তা নিয়ে আলোচনা চলছে হাসিনা সরকারের অন্দরে। এহেন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ সাফ জানিয়েছে, দিল্লিতে ক্ষমতা বদল হলেও অটুট থাকবে দু’দেশের বন্ধুত্ব। 

[আরও পড়ুন: সন্তানের পিতৃত্বের দাবি জানিয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ যুবক]

ভৌগলিক কারণে ভারত ও বাংলাদেশ একে ওপরের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে তৎপর। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা পাকপন্থী খালেদা জিয়ার আমল বাদ দিলে, ঢাকা-দিল্লি বরাবরই সুসম্পর্ক বজায় রেখে এসেছে| এবং এর ফলও পেয়েছে দু’দেশ। সেই কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভি বলেন, “ভারতে যে সরকারই ক্ষমতায় আসুক না কেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক সবসময় ভাল থাকবে। ভবিষ্যতে আরও মজবুত হবে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক। নির্বাচনের ফলাফলে আমাদের মতের কোনও পরিবর্তন হবে না।” ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইলে আশুতোষ চক্রবর্তী স্মারক শিক্ষা বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে এসে রিজভি তাৎপর্যপূর্ণভাবে বলেন, “নতুন সরকার নতুন জনমত নিয়ে আসবে। মোদিজি আসুক বা অন্য কেউ, আমাদের সম্পর্ক সবসময় ভাল থাকবে।”

[আরও পড়ুন: যুদ্ধাপরাধের দায়ে আরও ২ রাজাকারের ফাঁসির আদেশ]

আপাতদৃষ্টিতে রিজভির মন্তব্য অকপট মনে হলেও এর নিহিত অর্থ নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে শেখ হাসিনার সম্পর্ক অত্যন্ত ভাল। গত বছর বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামি লিগকেই মদত জুগিয়েছিল দিল্লি। পালটা মোদিকে পরোক্ষে সমর্থন জানিয়েছেন হাসিনা। তবে মোদি জাদু ফিকে হওয়ায় চলতি বছর হাওয়া লেগেছে বিরোধী পালেও। ফলে দিল্লির মসনদে অন্য মুখ বসলে আশ্চর্য হওয়ার কিছু থাকবে না। তাই যে কোনও পরিস্থিতিতে ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতেই এহেন মন্তব্য করেছেন হাসিনার উপদেষ্টা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং